পুরাতন মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন

পুরাতন মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন

 পুরাতন মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন -বাংলাদেশে পুরাতন মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন করা একটি সহজ প্রক্রিয়া। প্রয়োজনীয় কাগজপত্র এবং ফি প্রদান করে আপনি সহজেই আপনার পুরাতন মোটরসাইকেলের জন্য নতুন রেজিস্ট্রেশন সনদ পেতে পারেন।আজকের  এই পোস্টে আপনাদের সাথে শেয়ার করব আমি কিভাবে আপনারা পুরাতন মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন করবেন ও   রেজিস্ট্রেশনের ফি কত তাই বিস্তারিত জানতে নিচের পোস্টটি পড়ুন ।

বাংলাদেশে মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন করার জন্য নিম্নলিখিত প্রয়োজনীয়তা পূরণ করতে হবে:

ক্রেতার প্রাসঙ্গিক কাগজপত্র:

  • ক্রেতার জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধন সনদ
  • ক্রেতার TIN সার্টিফিকেট (ভাড়ায় চালিত নহে এমন কার, জিপ, মাইক্রোবাসের ক্ষেত্রে)

বিক্রেতার প্রাসঙ্গিক কাগজপত্র:

  • বিক্রেতার জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধন সনদ
  • বিক্রেতার TIN সার্টিফিকেট
  • মোটরসাইকেলের মূল রেজিস্ট্রেশন সনদ (উভয় কপি)/ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট
  • মোটরসাইকেলের ইঞ্জিন ও চেসিস নম্বরের ফটোকপি
  • ছবিসহ নন-জুডিসিয়াল স্ট্যাম্পে ওয়ারিশগণের হলফনামা (একাধিক ওয়ারিশ থাকলে এবং একজনের নামে মালিকানা প্রদান করা হলে অন্যান্য ওয়ারিশগণ কর্তৃক স্ট্যাম্পে আর একটি হলফনামা দিতে হবে)
  • সংশ্লিষ্ট নমুনা স্বাক্ষর ফরমে ত্রেতার নমুনা স্বাক্ষর এবং ইংরেজীতে নাম, পিতার/স্বামীর নাম, পর্ণ ঠিকানা ও 3 কপি স্ট্যাম্প আকারের রঙ্গীন ফটোসহ ফরমের অন্যান্য সকল তথ্য প্রদান

পুরাতন মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন


পুরাতন মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন  ফি কত

বাংলাদেশে পুরাতন মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশনের জন্য নিম্নলিখিত ফি প্রযোজ্য:

মালিকানা পরিবর্তন ফি: ১০০০ টাকা (সকল সিসির জন্য)
ফিটনেস টেস্ট ফি:
  • ৫০ সিসি পর্যন্ত: ৫০০ টাকা
  • ৫১-১০০ সিসি: ১০০০ টাকা
  • ১০১-১৫০ সিসি: ১৫০০ টাকা
  • ১৫১-২৫০ সিসি: ২৫০০ টাকা
  • ২৫১-৫০০ সিসি: ৩৫০০ টাকা
  • ৫০১ সিসি বা তদুর্ধ্ব: ৫০০০ টাকা
ট্যাক্স টোকেন ফি:
  • ৫০ সিসি পর্যন্ত: ৫০০ টাকা
  • ৫১-১০০ সিসি: ১০০০ টাকা
  • ১০১-১৫০ সিসি: ১৫০০ টাকা
  • ১৫১-২৫০ সিসি: ২৫০০ টাকা
  • ২৫১-৫০০ সিসি: ৩৫০০ টাকা
  • ৫০১ সিসি বা তদুর্ধ্ব: ৫০০০ টাকা
মালিকানা পরিবর্তন ফি এবং ফিটনেস টেস্ট ফি বিআরটিএ অফিসে নগদ প্রদান করতে হবে।

ট্যাক্স টোকেন ফি বিআরটিএ অফিসে নগদ বা অনলাইনে প্রদান করা যাবে।

ট্যাক্স টোকেন ফি অনলাইনে প্রদান করতে হলে, বিআরটিএ অফিসের ওয়েবসাইট থেকে ফর্ম পূরণ করে এবং প্রয়োজনীয় ফি জমা দিয়ে ট্যাক্স টোকেন সংগ্রহ করতে হবে।

পুরাতন মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশনের জন্য বিআরটিএ অফিসে আবেদন করার সময় প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ ফি প্রদান করতে হবে।

পুরাতন মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশনের পদ্ধতি

বাংলাদেশে পুরাতন মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশনের জন্য নিম্নলিখিত পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে:
প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সংগ্রহ করুন :
  • ক্রেতার জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধন সনদ
  • ক্রেতার TIN সার্টিফিকেট (ভাড়ায় চালিত নহে এমন কার, জিপ, মাইক্রোবাসের ক্ষেত্রে)
  • বিক্রেতার জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধন সনদ
  • বিক্রেতার TIN সার্টিফিকেট
  • মোটরসাইকেলের মূল রেজিস্ট্রেশন সনদ (উভয় কপি)/ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট
  • মোটরসাইকেলের ইঞ্জিন ও চেসিস নম্বরের ফটোকপি
ছবিসহ নন-জুডিসিয়াল স্ট্যাম্পে ওয়ারিশগণের হলফনামা (একাধিক ওয়ারিশ থাকলে এবং একজনের নামে মালিকানা প্রদান করা হলে অন্যান্য ওয়ারিশগণ কর্তৃক স্ট্যাম্পে আর একটি হলফনামা দিতে হবে)
সংশ্লিষ্ট নমুনা স্বাক্ষর ফরমে ত্রেতার নমুনা স্বাক্ষর এবং ইংরেজীতে নাম, পিতার/স্বামীর নাম, পর্ণ ঠিকানা ও 3 কপি স্ট্যাম্প আকারের রঙ্গীন ফটোসহ ফরমের অন্যান্য সকল তথ্য প্রদান
 
বিআরটিএ অফিসে যান :
  • নিকটস্থ বিআরটিএ অফিসে যান।
  • অফিসের কর্মীদের সাথে কথা বলুন এবং মালিকানা পরিবর্তন আবেদনপত্র পূরণ করতে সাহায্য করুন।
প্রয়োজনীয় ফি প্রদান করুন:
  • মালিকানা পরিবর্তন ফি, ফিটনেস টেস্ট ফি এবং ট্যাক্স টোকেন ফি প্রদান করুন।
আবেদনপত্র জমা দিন:
  • পূরণ করা আবেদনপত্র এবং প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ বিআরটিএ অফিসে আবেদনপত্র জমা দিন।
  • মালিকানা পরিবর্তন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে, আপনাকে নতুন রেজিস্ট্রেশন সনদ প্রদান করা হবে।
বিআরটিএ অফিসে আবেদন করার সময় নিম্নলিখিত বিষয়গুলি মনে রাখতে হবে:
  • প্রয়োজনীয় কাগজপত্রগুলি সাবধানে পরীক্ষা করুন এবং নিশ্চিত করুন যে সেগুলি সঠিক।
  • প্রয়োজনীয় ফিগুলি সঠিকভাবে প্রদান করুন।
  • বিআরটিএ অফিসের কর্মীদের নির্দেশাবলী অনুসরণ করুন।
পুরাতন মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশনের জন্য বিআরটিএ অফিসে আবেদন করার সময় প্রয়োজনীয় কাগজপত্রগুলির নকল গ্রহণ করা উচিত। এটি ভবিষ্যতে প্রয়োজনে সহায়ক হতে পারে।

উপসংহার : যদি আপনার কাছে একটি পুরাতন মোটরসাইকেল থাকে, তাহলে অবশ্যই তা রেজিস্ট্রেশন করুন। এটি আপনার জন্য অনেক সুবিধা নিশ্চিত করবে।

পরবর্তী পোস্ট পূর্ববর্তী পোস্ট