ইন্টারন্যাশনাল পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে

ইন্টারন্যাশনাল পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে জেনে নিন ।

 একটি ইন্টারন্যাশনাল পাসপোর্ট হল একটি সরকারী নথি যা একজন ব্যক্তিকে তার নিজ দেশের সীমানার বাইরে ভ্রমণের অনুমতি দেয়। পাসপোর্টে ব্যক্তির ছবি, নাম, জন্ম তারিখ, জাতীয়তা এবং অন্যান্য তথ্য থাকে। পাসপোর্ট হল ভ্রমণের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নথিগুলির মধ্যে একটি। 

পাসপোর্টের মূল উদ্দেশ্য হল একজন ব্যক্তির সনাক্তকরণ এবং নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। পাসপোর্টের তথ্যের মাধ্যমে, একজন ব্যক্তির জাতীয়তা, জন্ম তারিখ এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সহ তার পরিচয় নিশ্চিত করা যায়। এটি পাসপোর্টধারীকে বিদেশে থাকাকালীন এবং ভ্রমণের সময় সুরক্ষা প্রদান করতে সাহায্য করে।

এই সকল পোস্টগুলি দেখতে পারেন - রবি মিনিট অফার ২০২৪

দুরন্ত সাইকেল মূল্য ২০২৪

ইন্টারন্যাশনাল পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে

ইন্টারন্যাশনাল পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে



ইন্টারন্যাশনাল পাসপোর্ট করতে যা যা লাগে:

  • আবেদন ফরম: ই-পাসপোর্টের জন্য অনলাইনে আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে। আবেদন ফরম পূরণের সময় আপনার বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানা, ব্যক্তিগত তথ্য, শিক্ষাগত যোগ্যতা, পেশাগত তথ্য, পরিবারের তথ্য, জরুরি যোগাযোগের তথ্য ইত্যাদি সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে।
  • ছবি: পাসপোর্টের জন্য 3.5 সেমি x 4.5 সেমি সাইজের 2 কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি লাগবে। ছবি অবশ্যই 6 মাসের মধ্যে তোলা হতে হবে এবং ছবিতে আপনার মুখের পুরোটাই দেখা যাবে।
  • প্রয়োজনীয় কাগজপত্র: পাসপোর্টের জন্য নিম্নলিখিত কাগজপত্র লাগবে:
  • জাতীয় পরিচয়পত্রের মূল কপি ও ফটোকপি
  • জন্মনিবন্ধন সনদপত্রের মূল কপি ও ফটোকপি
  • পাসপোর্টের জন্য আবেদনকারী যদি বিবাহিত হন, তবে স্ত্রী/স্বামীর জাতীয় পরিচয়পত্রের মূল কপি ও ফটোকপি
  • পাসপোর্টের জন্য আবেদনকারী যদি শিক্ষার্থী হন, তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সনদপত্রের মূল কপি ও ফটোকপি
  • পাসপোর্টের জন্য আবেদনকারী যদি চাকরিজীবী হন, তবে চাকরি প্রতিষ্ঠানের সনদপত্রের মূল কপি ও ফটোকপি
  • পাসপোর্টের জন্য আবেদনকারী যদি ব্যবসায়ী হন, তবে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সনদপত্রের মূল কপি ও ফটোকপি
  • পাসপোর্ট ফি: পাসপোর্টের মেয়াদ ও পৃষ্ঠা সংখ্যা অনুযায়ী ফি নির্ধারিত হয়। বর্তমানে 36-পৃষ্ঠার মেয়াদ 5 বছরের পাসপোর্টের ফি 3,000 টাকা এবং 56-পৃষ্ঠার মেয়াদ 10 বছরের পাসপোর্টের ফি 5,000 টাকা।

আবেদন প্রক্রিয়া:

প্রথমে বাংলাদেশ ই-পাসপোর্ট অনলাইন পোর্টালে গিয়ে আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে।
আবেদন ফরম পূরণের পর নির্ধারিত ফি জমা দিতে হবে।
ছবি তোলা ও আঙ্গুলের ছাপ নেওয়ার জন্য নির্ধারিত তারিখে পাসপোর্ট অফিসে উপস্থিত হতে হবে।
সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে পাসপোর্ট ডেলিভারি নেওয়া যাবে।

পাসপোর্ট ডেলিভারি সময়:

আবেদন জমা দেওয়ার পর পাসপোর্ট ডেলিভারির জন্য সাধারণত ১০-১৫ দিন সময় লাগে।
তবে অতিরিক্ত দ্রুত পাসপোর্ট পেতে চাইলে তাৎক্ষণিক/দ্রুত সেবা নিতে পারেন।
তাৎক্ষণিক/দ্রুত সেবায় পাসপোর্ট ডেলিভারির জন্য ২-৩ দিন সময় লাগে।

পাসপোর্ট সংশোধন:

পাসপোর্টে যদি কোন ভুল থাকে, তবে তা সংশোধন করতে হবে।
পাসপোর্ট সংশোধনের জন্য নির্ধারিত ফি জমা দিতে হবে।
পাসপোর্ট সংশোধনের জন্য নির্ধারিত তারিখে পাসপোর্ট অফিসে উপস্থিত হতে হবে।
সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে সংশোধিত পাসপোর্ট ডেলিভারি নেওয়া যাবে।
পরবর্তী পোস্ট পূর্ববর্তী পোস্ট