স্যামসাং মোবাইল ফোনের দাম ২০২৪ বাংলাদেশ | Samsung Mobile Price in Bangladesh 2024

স্যামসাং মোবাইল ফোনের দাম জানুন ২০২৩ বাংলাদেশ | Samsung Mobile official Price in Bangladesh 2023

 স্যামসাং মোবাইল ফোনের দাম ২০২৪ বাংলাদেশ - স্যামসাং ফোনের দর এবং পিকচার 2024 | হ্যালো বন্ধুরা, আজকের এ পোস্টের দ্বারা স্যামসাং ফোনের প্রাইস ও পিকচার 2024 সম্মন্ধে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। আপনি যদি স্যামসাং ব্র্যান্ডের মুঠো ফোন কিনতে চান, তাহলে আজকের এই পোস্টটি আপনার জন্য পর্যাপ্ত বেশি গুরুত্বপূর্ণ। স্যামসাং সম্প্রতি খুবই জনপ্রিয় ১টি মোবাইল ব্র্যান্ড কোম্পানি। 

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে স্যামসাং ব্র্যান্ডের জনপ্রিয়তা দিন দিন বেড়েই চলেছে। স্যামসাং ব্র্যান্ডের মুঠোফোন ফোন গুলো পর্যাপ্ত হ্যালো কোয়ালিটি মানের হয়ে থাকে। আমি নিজেও স্যামসাং মোবাইল ফোন ব্যবহার করি। তলে স্যামসাং ফোনের প্রাইস এবং ছবি 2024 সম্পর্কে ডিটেইলস আলোচনা করা হলো।

অন্য পোষ্ট -

আজকের স্বর্ণের দাম কত বাংলাদেশে | ১ ভরি সোনার দাম কত ২০২৩ বাংলাদেশে

Samsung galaxy S21 FE 5G বাংলাদেশে দাম কত

শাওমি রেডমি A1 এর দাম কত বাংলাদেশে 

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট 20 আলট্রা দাম কত বাংলাদেশে

রিয়েলমি GT Master Edition দাম কত

টেকনো পোভা নিও ২ দাম কত

Oppo F21s Pro দাম কত বাংলাদেশে

আইফোন ১৪ প্রো ম্যাক্স দাম কত

স্যামসাং মোবাইল ফোনের দাম ২০২৩ বাংলাদেশ | Samsung Mobile Price in Bangladesh 2023


স্যামসাং মোবাইল ফোনের দাম ২০২৪ বাংলাদেশ

স্যামসাং মোবাইল ফোনের দাম ২০২৩ বাংলাদেশ

Samsung Galaxy A04

৳12,999 3/32 GB সর্বশেষ

Samsung Galaxy A04s

৳16,999 ৳17,999 4/64 জিবি

৳18,999 4/128 জিবি

Samsung Galaxy Z Fold 4

৳259,999 12/256 GB 

Samsung Galaxy Z Flip4

৳154,999 8/256 জিবি

Samsung Galaxy F13

৳22,599 ৳23,399 4/64 জিবি

৳28,499 ৳28,999 6/128 GB 

Samsung Galaxy M33 5G

৳55,499 8/128 জিবি

Samsung Galaxy F23 5G

৳31,999 সর্বশেষ

Samsung Galaxy M33 5G

৳36,999 8/128 জিবি

Samsung Galaxy A73 5G

৳77,499 8/256 GB 

Samsung Galaxy A23 

৳27,999 ৳31,599 6/128 জিবি

Samsung Galaxy A13

৳19,499 ৳20,999 4/64 GB

৳22,999 ৳23,999 6/128 GB 

Samsung Galaxy A53 5G 

৳58,999 8/128 জিবি

Samsung Galaxy A33 5G

৳48,699 8/128 GB 

Samsung Galaxy A03 

৳12,999 ৳14,999 3/32 GB

৳14,999 ৳16,999 4/64 GB

Samsung Galaxy S22 Ultra

৳162,999 ৳179,999 12/256 GB 

Samsung Galaxy S22+ 

৳123,999 ৳142,999 8/256 GB

Samsung Galaxy A03 Core

৳10,999 ৳12,299 

Samsung Galaxy S21 FE 5G 

৮৯,৯৯৯ টাকা

Samsung Galaxy A03s

৳13,999 ৳18,599 4/64 GB 

Samsung Galaxy A52s 5G 

৳59,999 8/128 জিবি

Samsung Galaxy F22

৳24,999 6/128 GB 

Samsung Galaxy Z Fold3 5G

৳225,999

Samsung Galaxy Z Flip3 5G

৳130,999 

Samsung Galaxy A72 

৳53,999 8/256 জিবি

Samsung Galaxy A52

৳39,999 8/128 GB 

Samsung Galaxy M12 

৳23,499 6/128 জিবি

Samsung Galaxy M32 

৳23,999

Samsung Galaxy A22

৳22,499

Samsung Galaxy A12 

৳14,999 4/64 GB

৳15,999 4/128 GB

Samsung Galaxy S21 Ultra ✭

৳139,999

Samsung Galaxy A32 ✭

৳26,999 6/128 GB

৳27,999 8/128 GB

Samsung Metro 313 ✭

৳2,750

Samsung Metro 350 ✭

৳3,550

Samsung Guru Music 2 ✭

৳2,450

Samsung Galaxy M62 ✭

৳34,999 8/128 GB

Samsung Galaxy M02 ✭

৳8,599 2/32 GB

৳9,999 3/32 GB

Samsung Galaxy M02s ✭

৳12,999 4/64 GB

Samsung Galaxy M01s ✭

৳11,999

Samsung Galaxy Note20 Ultra ✭

৳134,999 12/256 GB

Samsung Galaxy M01 Core ✭

৳6,999 ৳7,999 2/32 GB

Samsung Galaxy M21 ✭

৳18,999 ৳20,999 6/128 GB

Samsung Galaxy M31 ✭

৳23,999 ৳27,999 8/128 GB

Samsung Galaxy S21+ ✭

৳122,999

Samsung Galaxy M51 ✭

৳33,999 ৳35,999 8/128 GB

Samsung Galaxy Note20 ✭

৳99,999 8/256 GB

Samsung Galaxy M01 ✭

৳11,499

Samsung Galaxy S20 FE ✭

৳64,999 8/128 GB

Samsung Galaxy M11 ✭

৳11,999 ৳14,999 3/32 GB

Samsung Galaxy A31 red

৳23,999 6/128 GB

Samsung Galaxy S20 Ultra ✭

৳129,999 5G 128 GB

Samsung Galaxy Note 10 Lite ✭

৳49,999

Samsung Galaxy A71 ✭

৳34,999 8/128 GB

Samsung Galaxy A51 ✭

৳27,499 6/128 GB

Samsung Galaxy Z Fold2 ✭

৳199,999 ৳266,999

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২২+ : Samsung Galaxy S22+

২০২৩ সালে স্যামসাং তাদের ফ্ল্যাগশিপ ফোনের সিরিজ গ্যালাক্সি এস২২ মার্কেটে আনে। এটা সেই সিরিজের মধ্যম ফোন। বাজেট যাদের নিকট কোন বিষয় নয় তাদের জন্য এ ফোন বর্ষের সেরা সেরা ফোনের একটি। গ্যালাক্সি এস২২ সিরিজের মতোই এতেও রয়েছে সর্বশেষ ফ্ল্যাগশিপ ৪ ন্যানোমিটারের স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১ চিপসেট যা আন্ড্রয়েড ফোনের জন্য বর্তমান বাজারে সেরা। প্রত্যেক স্যামসাং ফ্ল্যাগশিপ ফোনের মতোই এতে বিদ্যমান সুন্দর অ্যামোলেড ১২০ হার্টজ ডিসপ্লে।


ক্যামেরাতেও এ ফোন টেক্কা দেবে আইফোনসহ অন্য সকল ফ্ল্যাগশিপ ফোনের সাথেই। আছে ট্রিপল ক্যামেরা যার প্যারেন্ট লেন্স ৫০ মেগাপিক্সেল। দৈনন্দিন কাজ, ফটোগ্রাফি, খেলা-ধুলা খেলা বা অন্য যে কাজের জন্যই নেন না কিশের জন্য হতাশ হবেন না এই ফোনটি নিয়ে। বিদ্যমান ৪৫০০ মিলিএম্প ব্যাটারি, ৪৫ ওয়াট দ্রুত চার্জ, ১৫ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জের সুবিধাও। তবে একদম ঊর্ধ্বের সারির স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২২ আলট্রা হতে ক্যামেরা এবং ডিসপ্লে সাইজে কিছুটা কম রাখা হয়েছে এতে কিছুটাকম দামে মার্কেটে আনবার জন্য।


স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২২+ এর স্পেসিফিকেশনঃ

ডিসপ্লেঃ ৬.৬ ইঞ্চি

প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১

র‍্যামঃ ৮ জিবি

স্টোরেজঃ ২৫৬ জিবি

ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ক্যামেরা (৫০ + ১০ +১২ মেগাপিক্সেল)

ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১০ মেগাপিক্সেল

ব্যাটারিঃ ৪৫০০ মিলিএম্প

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ২০ – Samsung Galaxy Note 20

২০২০ সালে স্যামসাং এ ফোন মার্কেটে আনলেও ফ্ল্যাগশিপ ক্যাটাগরির ফোন বলে এটি এখনও বেশ সুন্দর পারফর্মেন্স দেয়া একটি ফোন। স্যামসাংয়ের নোট সিরিজ তৈরি করা হয় বিজনেস বা প্রফেশনালদের কথা মাথায় রেখে যারা দৈনন্দিন অফিসিয়াল কাজে ফোনকে ইউজ করেন। এজন্য এই ফোনের বিদ্যমান ৬.৭ ইঞ্চির ডিসপ্লে এবং ফোনের সঙ্গেই স্যামসাংয়ের ১টি স্টাইলাস পেন থাকে যা দ্বারা আপনি নোট নেয়া, ছবি আঁকা বা এ প্রকারের কাজগুলো করার জন্য পারবেন।

এক্সিনোস ৯৯০ নামের স্যামসাংয়ের নিজস্ব চিপসেট রয়েছে এতে যা ফ্ল্যাগশিপ চিপসেট। এই ফোনে বেশ বেশ ভালো খেলা-ধুলা খেলতে পারবেন। আছে ১২০ হার্টজ অ্যামোলেড ডিসপ্লে, ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ। আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট বিদ্যমান এতে, সাথে বিদ্যমান ৪৩০০ মিলিএম্প ব্যাটারি। সকল রকমের ফ্ল্যাগশিপ ফিচার ২০২৩ সালে এসেও এই ফোনকে উপরের সারিতেই রাখবে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ২০ এর স্পেসিফিকেশনঃ
ডিসপ্লেঃ ৬.৭ ইঞ্চি
প্রসেসরঃ এক্সিনোস ৯৯০
র‍্যামঃ ৮ জিবি
স্টোরেজঃ ২৫৬ জিবি
ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ক্যামেরা (১২+৬৪+১২ মেগাপিক্সেল)
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১০ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ ৪৩০০ মিলিএম্প

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২২ আলট্রা

২০২৩ সালে স্যামসাংয়ের সবথেকে দামি এবং উন্নত স্পেকের ফোন এটি। স্যামসাং তাদের সেরা সবকিছু এই ফোনেই দিয়ে দিয়েছে। সবথেকে দ্রুতগতির স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১ চিপসেট তো আছেই, ক্যামেরার ক্ষেত্রে স্যামসাং একদম সকলকে হারিয়ে দেওয়ার জন্য পিছনে দিয়েছে ৪ টি ক্যামেরা যার প্যারেন্ট ক্যামেরা ১০৮ মেগাপিক্সেলের ছবি তুলতে পারে। ক্যামেরা সেটআপের জন্য অনেকে ২০২২ বর্ষের সেরা ক্যামেরা ফোন বলছেন।

আছে আলট্রা ওয়াইড, পেরিস্কোপ, টেলিফটো ক্যামেরাও। সেলফি ক্যামেরাতেও রাখা হয়েছে ৪০ মেগাপিক্সেলের সেন্সর। ফোনটি এই সিরিজের সবথেকে জ্যেষ্ঠ ৬.৮ ইঞ্চি ডিসপ্লের ফোন। বিদ্যমান আইপি৬৮ রেটিং সহ সকল ধরণের প্রিমিয়াম ফিচার। ২০২২ বছরের সেরা সেরা ফোন এটি। সবদিকে দৃষ্টি রেখে স্যামসাং তাদের সর্বসেরা পরিসেবা দিচ্ছে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২২ আলট্রা ফোনটিতে। এইজন্য বরাদ্দ থাকে তাহলে এ ফোন কিনতে দ্বিধা করা কর্তব্য নয়।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২২ আলট্রা এর স্পেসিফিকেশনঃ
ডিসপ্লেঃ ৬.৮ ইঞ্চি
প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১
র‍্যামঃ ১২ জিবি
স্টোরেজঃ ২৫৬ জিবি
ব্যাক ক্যামেরাঃ কোয়াড ক্যামেরা (১০৮+১০+১০+১২ মেগাপিক্সেল)
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৪০ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ৫৩ ৫জি

২০২৩ সালে স্যামসাংয়ের ৫০ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে অন্যতম সর্বসেরা ফোন এটি। স্যামসাং এইখানে নিজস্ব ৫ ন্যানোমিটারের এক্সিনোস ১২৮০ চিপসেট দিয়েছে যা বেশ বেশ ভালো পারফর্মেন্স দেওয়ার জন্য পারে ও সবরকম গেমসও খেলতে পারবেন। বিদ্যমান ১২০ হার্টজের ৬.৫ ইঞ্চির অসাধারন ১টি অ্যামোলেড ডিসপ্লে। ক্যামেরা সেকশনেও এটি বেশ ভালো। কোয়াড ক্যামেরা সেটআপে প্যারেন্ট সেন্সরটি ৬৪ মেগাপিক্সেলের। আছে আলট্রা ওয়াইড, ম্যাক্রো, ডেপথ সেন্সর ক্যামেরাও। আর সবকিছুর সাথে রয়েছে ৫০০০ মিলিএম্পের জ্যেষ্ঠ ব্যাটারি যা স্যামসাংয়ের মতে ২ দিন ব্যাকাপ দিতে পারবে। তাছাড়া আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট, আইপি৬৭ রেটিং, ৫জি এর মতো লেটেস্ট সব ফিচার পেয়ে যাবেন এই ফোনে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ৫৩ ৫জি এর স্পেসিফিকেশনঃ
ডিসপ্লেঃ ৬.৫ ইঞ্চি
প্রসেসরঃ এক্সিনোস ১২৮০
র‍্যামঃ ৮ জিবি
স্টোরেজঃ ১২৮ জিবি
ব্যাক ক্যামেরাঃ কোয়াড ক্যামেরা (১২+৬৪+৫+৫ মেগাপিক্সেল)
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৩২ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২১ এফই ৫জি

২০২১ সালে মার্কেটে আসা এস২১ সিরিজ ছিল স্যামসাংয়ের সেসময়ের সর্বসেরা ফ্ল্যাগশিপ ফোন। কিন্তু দামের কারণে ফ্লাগশিপ ফোনগুলো অনেকের হাতের বাইরে থাকায় একই চিপসেট ইউজ করে ও অন্য কতিপয় জায়গায় কাটতি রেখে ২০২২ সালের শুরুতে স্যামসাং এই ফোন বাজারে আনে। এস২১ সিরিজের সব ফোনের মতোই এতেও ব্যবহার হয়েছে এক্সিনোস ২১০০ এর ৫ ন্যানোমিটার ফ্ল্যাগশিপ চিপসেট।

তাই পারফর্মেন্সে কোন কমতি নেই। তবে ক্যামেরা সেকশনে কিছুটা কম রাখা হলেও এই বাজেটে এটি সেরা সর্বসেরা ফোন ক্যামেরা। পিছনে রয়েছে ১২ মেগাপিক্সেলের ৩ টি ক্যামেরা এবং সামনে ৩২ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। এছাড়াও আছে ১২০ হার্টজের অ্যামোলেড ডিসপ্লে, ওয়্যারলেস চার্জিং, আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্টের মতো ফ্ল্যাগশিপ ফিচারগুলো। ৪৫০০ মিলিএম্পের সারাদিন চলার মতো ব্যাটারি ও ২৫ ওয়াটের ফাস্ট চার্জ সুবিধাও বিদ্যমান এখানে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২১ এফই ৫জি এর স্পেসিফিকেশনঃ

ডিসপ্লেঃ ৬.৪ ইঞ্চি
প্রসেসরঃ এক্সিনোস ২১০০
র‍্যামঃ ৮ জিবি
স্টোরেজঃ ১২৮ জিবি
ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ক্যামেরা (১২+১২+১২ মেগাপিক্সেল)
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৩২ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ ৪৫০০ মিলিএম্প


স্যামসাং গ্যালাক্সি এ৭৩ ৫জি

ফ্ল্যাগশিপ এস সিরিজের ফোনের পরে এই সিরিজের এই ফোনটি স্যামসাংয়ের দামি ফোনের মধ্যে অন্যতম। ফিচার রিচ এই ফোনে বেশ চমৎকার পারফর্মেন্স দিতে কোয়ালকমের হাই বরাদ্দ নতুন ৫জি চিপ ৭৭৮জি ইউজ করা হয়েছে। শক্তিশালী এই চিপে দৈনন্দিন সব কাজ অনায়াসে করা ছাড়াও বেশ সুন্দর গেম খেলতে পারবেন। ৬.৭ ইঞ্চির বড় ১২০ হার্টজের সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে বিদ্যমান যা একদম ফ্ল্যাগশিপ লেভেলের ১টি প্যানেল।

তাছাড়া ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট রয়েছে এখানে। ক্যামেরা সেকশনেও এই ফোন প্রচুর এগিয়ে। ১০৮ মেগাপিক্সেলের মেইন লেন্সসহ রয়েছে মোট ৪ টি ক্যামেরা। সেলফি তুলতে দেয়া হয়েছে ৩২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। তাছাড়া আইপি৬৭ রেটিং, ৫০০০ মিলিএম্পের দুই দিন ব্যাকাপ দেয়ার মতো ব্যাটারি, ২৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং ইত্যাদি নানারকম চমৎকার ফিচার ফোনটিকে আকর্ষণীয় করে তুলেছে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ৭৩ ৫জি এর স্পেসিফিকেশনঃ

ডিসপ্লেঃ ৬.৭ ইঞ্চি
প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৭৭৮জি
র‍্যামঃ ৮ জিবি
স্টোরেজঃ ২৫৬ জিবি
ব্যাক ক্যামেরাঃ কোয়াড ক্যামেরা (১০৮+১২+৫+৫ মেগাপিক্সেল)
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৩২ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ এফই

২০২০ সালে স্যামসাং তাদের তখনকার ফ্ল্যাগশিপ এস২০ লাইনআপে কম মূল্যের একটি ভার্সন মার্কেটে আনে যেটি স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ এফই। এই ফোনে ফ্ল্যাগশিপ লেভেলের চিপ ও ক্যামেরা দিয়েছে এস২০ লাইনআপের অন্য সকল সেটের মতোই। বিদ্যমান এক্সিনোস ৯৯০ চিপ, এজন্য পারফর্মেন্সে এখনও এটি বেশ ভালো।

গেম খেলা-ধুলা বা দৈনন্দিন সকল কাজ অনায়াসে করে ফেলতে পারবেন। তাছাড়া ১২ মেগাপিক্সেল প্যারেন্ট সেন্সরসহ ৩ টি ক্যামেরাও বিদ্যমান পিছনে। ফ্ল্যাগশিপ এস২০ এর মতোই বিদ্যমান ১২০ হার্টজের অ্যামোলেড ডিসপ্লে, ওয়্যারলেস চার্জিং, আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট, আইপি৬৮ রেটিং ইত্যাদি। ৪৫০০ মিলিএম্পের ব্যাটারিও সারাদিন ব্যাকাপ দেওয়ার জন্য পারে। ২০২৩ এর জন্য এইজন্য এটা এখনও বেশ ভালো একটি ফোন।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ এফই এর স্পেসিফিকেশনঃ

ডিসপ্লেঃ ৬.৫ ইঞ্চি
প্রসেসরঃ এক্সিনোস ৯৯০
র‍্যামঃ ৮ জিবি
স্টোরেজঃ ১২৮ জিবি
ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ক্যামেরা (১২+৮+১২ মেগাপিক্সেল)
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৩২ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ ৪৫০০ মিলিএম্প


স্যামসাং গ্যালাক্সি এ৫২এস ৫জি – Samsung Galaxy A52s 5G


স্যামসাং তাদের মিড বাজেটে এই মোবাইলটি বাজারে আনে ২০২১ সালে যা এখনও পর্যন্ত সবদিক দিয়ে বেশ ভারসাম্যপূর্ণ একটি ফোন। এতে আছে হাইএন্ড মিড রেঞ্জের জন্য প্রস্তুত স্ন্যাপড্রাগন ৭৭৮ ৫জি চিপসেট যাতে দেশেই ৫জি চালাতে পারবেন। পারফর্মেন্সের দিক থেকে এটি সকল প্রকারের কাজ করতে পারবে এবং গেমস ভীষণ ভালোভাবেই চালাতে পারবে। এজন্য আপনি যে জন্যই এ ফোন নেন না কিশের জন্য এটি অতিশয় ভালোভাবেই আপনার ডিমান্ড পূরণ করার জন্য পারবে।

তাছাড়া ক্যামেরা বা ফটোগ্রাফির জন্য এতে বিদ্যমান কোয়াড অর্থাৎ ৪ টি ক্যামেরার সেটিংস যাহার মেইন লেন্সটি ৬৪ মেগাপিক্সেলের। এছাড়া আলট্রা ওয়াইড, ম্যাক্রো, ডেপথ সেন্সরও দিয়েছে স্যামসাং। স্যামসাং এর সর্বসেরা ১২০ হার্টজের অ্যামোলেড ডিসপ্লে রয়েছে এখানেও। তাছাড়া ৪৫০০ মিলিএম্পের ব্যাটারি, আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, আইপি৬৭ রেটিং প্রভৃতি পর্যাপ্ত ফ্ল্যাগশিপ গ্রেডের ফিচারও দিয়েছে স্যামসাং। একারণে সবদিক থেকেই এ মোবাইলটি ব্যাল্যান্সড ও চমৎকার ১টি চয়েস হতে পারে আপনার জন্য।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ৫২এস ৫জি এর স্পেসিফিকেশনঃ

ডিসপ্লেঃ ৬.৫ ইঞ্চি
প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৭৭৮জি
র‍্যামঃ ৮ জিবি
স্টোরেজঃ ১২৮ জিবি
ব্যাক ক্যামেরাঃ কোয়াড ক্যামেরা (৬৪+১২+৫+৫ মেগাপিক্সেল)
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৩২ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ ৪৫০০ মিলিএম্প


স্যামসাং গ্যালাক্সি এ২৩ – Samsung Galaxy A23

মধ্যম বাজেটে অনেক ভালো ফটোগ্রাফি ও বেশ ভালো ফোন চাইলে এই মোবাইলটি দেখতে পারেন। স্যামসাং এই ফোনে দৃষ্টি রেখেছে ক্যামেরার দিকে। এজন্য মৌলিক ৫০ মেগাপিক্সেল ক্যামেরায় দেয়া হয়েছে ওআইএস ফিচার। তাছাড়াও দেয়া হয়েছে আরও ৩ টি ক্যামেরা। স্ন্যাপড্রাগনের নতুন প্রযুক্তির ৬৮০ চিপসেট থাকায় পারফর্মেন্স নিয়েও ভাবনা করার জন্য হবে না। দৈনন্দিন কাজে বা টুকটাক গেমিং করতে অনেক অনেক ভালো কার্যকরী এ প্রসেসর। রয়েছে ৬.৬ ইঞ্চির ৯০ হার্টজের একটি এলসিডি ডিসপ্লে। তাছাড়া সাইড মাউন্টেড হাতের ছাপ সেন্সর, ৫০০০ মিলিএম্পের বড় ব্যাটারি, ২৫ ওয়াটের দ্রুত চার্জিং ফিচারগুলো এ ফোনকে এই দামে বেশ আকর্ষণীয় করে তুলেছে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ২৩ এর স্পেসিফিকেশনঃ

ডিসপ্লেঃ ৬.৬ ইঞ্চি
প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৬৮০
র‍্যামঃ ৬ জিবি
স্টোরেজঃ ১২৮ জিবি
ব্যাক ক্যামেরাঃ কোয়াড ক্যামেরা (৫০+৫+২+২ মেগাপিক্সেল)
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ৩৩ ৫জি – Samsung Galaxy A33 5G

৫০ হাজার ধনের নিম্নদেশে বরাদ্দ অনুযায়ী বেশ ভালো ১টি ফোন এটি। ২০২২ সালে নতুন এই মোবাইলটি মার্কেটপ্লেসে এনে বেশ সারা পেয়েছে স্যামসাং। এতে আছে স্যামসাংয়ের নিজেদের ৫ ন্যানোমিটারের স্মার্ট চিপসেট এক্সিনোস ১২৮০। দৈনন্দিন কাজগুলো করার সঙ্গে সাথে গেমিং বা ভারী কাজেও সুন্দর পারফর্মেন্স দেবে ফোনটি। তাছাড়া রয়েছে ৯০ হার্টজের সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে।

ক্যামেরায় আছে ওআইএস ফিচার যা সাধারনত ফ্ল্যাগশিপ ফোনে দেয়া হয়। কোয়াড ক্যামেরা সেটআপে প্যারেন্ট লেন্সটি ৪৮ মেগাপিক্সেলের। ফোনে অনেক অনেক ভালো ব্যাকাপ চাইলে এটি থেকে পারে আপনার সর্বসেরা পছন্দ। বিদ্যমান ৫০০০ মিলিএম্পের ব্যাটারি যা ২ দিন পর্যন্ত ব্যাকাপ দিতে সক্ষম। আন্ডার ডিসপ্লে হাতের ছাপ সেন্সর, আইপি৬৭ রেটিং ইত্যাদি স্যামসাংয়ের ট্রেডমার্ক ফিচারগুলো তো থাকছেই।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ৩৩ ৫জি এর স্পেসিফিকেশনঃ

ডিসপ্লেঃ ৬.৪ ইঞ্চি
প্রসেসরঃ এক্সিনোস ১২৮০
র‍্যামঃ ৮ জিবি
স্টোরেজঃ ১২৮ জিবি
ব্যাক ক্যামেরাঃ কোয়াড ক্যামেরা (৪৮+৮+৫+২ মেগাপিক্সেল)
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ০৪এস – Samsung Galaxy A04s

বাজেট সেকশনে ২০২২ সালে নিউ বাজারে এসেছে ফোনটি। স্যামসাং এ ফোনে বেশ কতিপয় স্মার্ট ফিচার যুক্ত করেছে। দিয়েছে ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের এলসিডি ডিসপ্লে। এক্সিনোস ৮৫০ চিপ থাকায় দৈনন্দিন সাধারন কাজগুলো অনায়াসে করা যাবে। বিদ্যমান ৫০ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ। ছবি তুলতে বেশ পটু ফোনটি। ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি, সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর প্রভৃতি বিভিন্ন ফিচারও দেয়া হয়েছে। অর্থাৎ প্রাইস অনুযায়ী বেশ ভারসাম্য রেখেছে স্যামসাং এই ফোনে। ১৬ হাজার টাকার আশেপাশের বাজেটে এই মোবাইলটি ভীষণ ভালো ১টি লাইক হতে পারে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ০৪এস এর স্পেসিফিকেশনঃ

ডিসপ্লেঃ ৬.৫ ইঞ্চি
প্রসেসরঃ এক্সিনোস ৮৫০
র‍্যামঃ ৪ জিবি
স্টোরেজঃ ৬৪ জিবি
ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ক্যামেরা (৫০+২+২ মেগাপিক্সেল)
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ০৩ – Samsung Galaxy A03

বাজেট সেকশনে স্যামসাং এই ফোন দিচ্ছে ২০ হাজার টাকার নিচে। এতে স্যামসাং পারফর্মেন্সের দিকে তেমন নজর দেয় নি। তবে ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপে দেয়া হয়েছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের একটি ক্যামেরা যা বেশ অনেক ভালো ফটো তুলতে পারে। ক্যামেরা যাদের জন্য অধিক জরুরি তারা এ ফোনের ক্যামেরা পারফর্মেন্সে সুখী হবেন নিশ্চিন্তে। তবে চিপসেট দেয়া হয়েছে ইউনিসকের টি৬০৬ যা দরকার কাজগুলো করার জন্য পারবে অনায়াসে। কিন্তু ভারী কোন কাজ বা গেম খেলতে চাইলে এ ফোনের বদলে অন্য কয়েকটি খুঁজে নেয়াই ভালো। তাছাড়াও আছে ৫০০০ মিলিএম্পের ব্যাটারি, ৬.৫ ইঞ্চির এলসিডি ডিসপ্লে। কিন্তু নেই কোন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। মাইক্রো ইউএসবি পোর্ট দেয়া হয়েছে যা এ সময়ে এসে কিছুটা পুরনো।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ০৩ এর স্পেসিফিকেশনঃ

ডিসপ্লেঃ ৬.৫ ইঞ্চি
প্রসেসরঃ ইউনিসক টি৬০৬
র‍্যামঃ ৪ জিবি
স্টোরেজঃ ৬৪ জিবি
ব্যাক ক্যামেরাঃ ডুয়াল ক্যামেরা (৪৮+২ মেগাপিক্সেল)
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম৩৩ ৫জি – Samsung Galaxy M33 5G

স্যামসাংয়ের এ ফোনটিকে যায় ব্যাটারি বিস্ট। ৬০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি থাকায় যাদের দীর্ঘক্ষণ ব্যাটারি ব্যাকাপ চাই তাদের জন্য সর্বসেরা পছন্দ থেকে পারে এটি। কিন্তু কেবলমাত্র ব্যাটারি নয় পারফর্মেন্সেও এটি এগিয়ে। এক্সিনোস ১২৮০ ৫ ন্যানোমিটারের প্রসেসর থাকায় সব কাজেই সুন্দর পারফর্মেন্স দিতে পারে। টুকটাক খেলা-ধুলা খেলতেও পারবেন এতে। তবে ডিসপ্লের ক্ষেত্রে কিছুটা কমতি রেখে দেয়া হয়েছে এলসিডি প্যানেল। তবে ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট আছে। ক্যামেরা রয়েছে ৪টি যার মেইন সেন্সর ৫০ মেগাপিক্সেলের পিকচার তুলতে পারে। ২৫ ওয়াটের দ্রুত চার্জিং সাপোর্ট করে এটি। তাছাড়া সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট, গরিলা গ্লাস ৫ প্রোটেকশন ইত্যাদি ফিচার রয়েছে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম৩৩ ৫জি এর স্পেসিফিকেশনঃ

ডিসপ্লেঃ ৬.৬ ইঞ্চি
প্রসেসরঃ এক্সিনোস ১২৮০
র‍্যামঃ ৮ জিবি
স্টোরেজঃ ১২৮ জিবি
ব্যাক ক্যামেরাঃ কোয়াড ক্যামেরা (৫০+৫+২+২ মেগাপিক্সেল)
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ ৬০০০ মিলিএম্প

স্যামসাং গ্যালাক্সি এফ১৩ – Samsung Galaxy F13

স্যামসাংয়ের বরাদ্দ ফোনের মার্কেটে ২০২৪ বছরের নতুন সংযোজন এই ফোনটি। ২০ হাজার ধনের আশেপাশের বাজেটেই যাদের দীর্ঘ সময় ব্যাটারি ব্যাকাপ দেবার মতো ফোন প্রয়োজন এ ফোন হতে পারে তাদের প্রথম পছন্দ। ৬০০০ মিলিএম্পের ব্যাটারি দেয়া হয়েছে এই ফোনে। তাছাড়া এক্সিনোস ৮৫০ চিপ ব্যবহার হওয়ায় সাধারন কাজগুলো করে ফেলতে পারে সহজেই। ক্যামেরার দিকেও নজর রাখা হয়েছে, দেয়া হয়েছে ৫০ মেগাপিক্সেলের খাঁটি ক্যামেরাসহ ৩ টি ক্যামেরা। হাই রিফ্রেশ রেটের ডিসপ্লে নেই এতে, বিদ্যমান ৬.৬ ইঞ্চির এলসিডি প্যানেল। একটানা মোবাইলটি প্লাস্টিকের সৃষ্টি হলেও দেখতে সুন্দর এবং আকর্ষণীয়।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এফ১৩ এর স্পেসিফিকেশনঃ

ডিসপ্লেঃ ৬.৬ ইঞ্চি
প্রসেসরঃ এক্সিনোস ৮৫০
র‍্যামঃ ৪ জিবি
স্টোরেজঃ ৬৪ জিবি
ব্যাক ক্যামেরাঃ ট্রিপল ক্যামেরা (৫০+৫+২ মেগাপিক্সেল)
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারিঃ ৬০০০ মিলিএম্প

আজকের এ পোস্টটি পড়ার মাধ্যমে আপনারা স্যামসাং মোবাইল ফোনের দাম ২০২৩ বাংলাদেশ সম্মন্ধে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। আপনি চাইলে আজকের এ পোস্টে উল্লেখ করা স্যামসাং ব্র্যান্ডের যেকোনো ১টি মোবাইল ফোন ফোন আপনি কিনতে পারেন। এ জাতীয় আরো নতুন নিউ স্যামসাং ব্র্যান্ডের মোবাইল সম্পর্কে পোস্ট পেতে আমাদের সাথেই থাকুন, ধন্যবাদ।

পরবর্তী পোস্ট পূর্ববর্তী পোস্ট